শনিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৭, ৬ কার্তিক ১৪২৪, ৩০ মুহাররম, ১৪৩৯ | ০৯:১৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
  • শনিবার দৃশ্যমান হবে পদ্মা সেতু
  • বিশ্ব আইটি সম্মেলনে পুরস্কার পেল বিআইটিএম
  • নির্মাণের ২৯ বছর পর মুক্তি পাচ্ছে যে ছবি
  • খেলার খবর ফিরলেন নাসির-শফিউল, বাদ মাহমুদউল্লাহ-মুমিনুল
বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৭ ০২:০৮:৫৪ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

সৌদি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তদন্ত কমিটিতে বাংলাদেশের ড. মাসুম

সৌদি আরবের প্রথম সারির শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কিং আবদুল আজিজ ইউনিভার্সিটিতে জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক পদে নিয়োগ পেয়েছেন বাংলাদেশের ড. মাসুম বিল্লাহ। বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘সিনিয়র প্রফেসর অব ইনভেস্টমেন্ট’ পদের পাশাপাশি সম্প্রতি সৌদি আরবের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তদন্ত কমিটির সদস্য হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন তিনি।

মাসুম বিল্লাহ এর আগে মালয়েশিয়ার ইউসিটেক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) পদে দায়িত্ব পালন করেন। ওই শীর্ষ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে দায়িত্ব পালন ছাড়াও তিনি মিডল ইস্টার্ন বিজনেস ওয়ার্ল্ড গ্রুপ অব কোম্পানির চেয়ারম্যান পদে ছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে ইকমার্সের ওপর ডিবিএ এবং কো-অপারেটিভ মাইক্রো-ফাইন্যান্সের ওপর এমবিএ করেছেন মাসুম বিল্লাহ। মালয়েশিয়া থেকে ইনস্যুরেন্সের ওপর পিএইচডি, কম্পারেটিভ করপোরেট ল-এ এমসিএল, এলএলবি (অনার্স) ও এমএলবি (মাস্টার্স) অর্জন করেছেন তিনি।

মাসুম বিল্লাহ দীর্ঘদিন ইসলামিক চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়া ছাড়াও বিভিন্ন দেশের বেশ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেছেন তিনি।

ড. মাসুম বিল্লাহ সেন্ট্রাল ব্যাংক অব মালয়েশিয়ার উপদেষ্টা পদে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি চীন, সিঙ্গাপুর, জাপান, হংকং, ইন্দোনেশিয়া, ব্রুনাই, দক্ষিণ আফ্রিকা, থাইল্যান্ড, ইরান, রাশিয়া, ফ্রান্স, কানাডাসহ বিভিন্ন দেশের অর্থনৈতিক সংস্থা ও এনজিও প্রভৃতি মিলিয়ে প্রায় ৩০টিরও বেশি সংস্থার চেয়ারম্যান, পরিচালক, কনসালট্যান্ট হিসেবে কাজ করেছেন।

মালয়েশিয়া সরকার ড. মাসুম বিল্লাহকে বিশেষ অবদানের জন্য ‘দাতু’ খেতাবও দিয়েছে।

বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার কৃতী সন্তান মাসুম বিল্লাহ। তাঁর বাবার নাম মুফতি মাওলানা নূর মোহাম্মদ। মায়ের নাম আখতারুন্নেসা। বর্তমানে তিনি মালয়েশিয়ার নাগরিক হলেও নিজেকে বাংলাদেশি পরিচয় দিতেই গর্ববোধ করেন। বাগেরহাটের শরণখোলার ড. মাসুম বিল্লাহ টেকনিক্যাল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা তিনি।

আরো খবর